মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

খেলাধুলা ও বিনোদন

এই প্রসঙ্গে প্রথমে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী বলি খেলা উলেস্নখযোগ্য। নানিয়ারচর উপজেলার ঘিলাছড়ি ইউনিয়নে হাজাছড়ি পুরান আদাম গ্রামে (পরবর্তীতে একই ইউনিয়নের জুড়াছড়ি গ্রামে)চিন্নমুণি চাকমানামে এক বড় বলির নাম এখনো শোনা যায়। পারিবারিক নাম বৈদ্যবাপ । তার পিতার নাম নাক্রুম চাকমা, মাতা- ধাম্বী চাকমা। ‘চিন্নমুনি বলি’ নামে তার পরিচিতি সর্বত্র। তার শরীরে আচার্য্য ধরণের বল ছিল বলে কথিত আছে। সেই সময়ে  তিনি একা ১৬ মণ ধান, বড় বড় বাঁশ ৫০০, ৮টি ৯ হাত লম্বা বড় বড় গাছের খুঁটি অনায়াসেই বাহুবলে উত্তোলন ও কাধে বহন করতেন। পুরান গ্রাম থেকে জুরাছড়ি বসতি স্থাপনকালে কোন দা-কুড়াল ছাড়া হাত দিয়ে গাছ-গাছড়া উপড়ে ফেলে জমি তৈরী করেছেন বলে জনশ্রতি রয়েছে।তার পরবর্তীর্ কৃষ্ণমাছড়া গ্রামের মিত্তুঙ্গ্যা বলি, ভুইয়াদাম নাঙ্গেল পাড়ার নাক্সাধন বলি, খামারপাড়ার আগোচ্যাচান বলি এবং করল্যাছড়ি মধ্যআদাম গ্রামেরনবদ্বীপ বলির নাম উলেস্নযোগ্য।ঃ